Home » জাতীয় » দেড় কোটি টাকার রিং বাঁধ কেটে দিল দুর্বৃত্তরা- শাহজাদপুরসহ ছয় উপজেলা প্লাবিত স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ দাবি এলাকাবাসীর

দেড় কোটি টাকার রিং বাঁধ কেটে দিল দুর্বৃত্তরা- শাহজাদপুরসহ ছয় উপজেলা প্লাবিত স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ দাবি এলাকাবাসীর

 

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সোমবার রাতে পোতাজিয়া ইউনিয়নের রাউতারা স্লুইচগেট সংলগ্ন বন্যা নিয়ন্ত্রণ রিং বাঁধ দূর্বৃত্তরা কেটে দিলে দ্রুত প্লাবিত হয় সিরাজগঞ্জ ও পাবনার ছয়টি উপজেলার বিস্তৃর্ণ এলাকা। উপজেলাগুলো হলো, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর, উল্লাপাড়া, তাড়াশ, পাবনার ফরিদপুর, ভাঙ্গুড়া, চাটমোহর। রাউতারা গ্রামের ফরমান শেখ জানান, সোমবার রাতে ও মঙ্গলবার সকালে বাঁধের পশ্চিম অংশের মাঝখানে কেটে দেয় মাছ শিকারি ও শ্যালো নৌকা মালিকেরা। এতে ১২শ মিটার বাঁধের অধিকাংশ জায়গা ভেঙে যায়। বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় পানির নিচে তলিয়ে গেছে গো-চারণ ভূমি। ফলে গো-খামারিরা গো-খাদ্যর সংকট নিরসনে চরম বিপাকে পড়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী ব্যাপারী বলেন, বাঁধ রক্ষায় দুই সপ্তাহ ধরে দুইজন চৌকিদার পাহারা দিচ্ছে। দুর্র্বৃত্তরা নজর এড়িয়ে বাঁধটি কেটে দিয়েছে। একই সাথে তিনি আরও জানান, প্রতি বছর সরকারের কোটি টাকা খরচ হচ্ছে এই অস্থায়ী বাঁধ নির্মাণে। এই বাঁধটি স্থায়ী ভাবে নির্মাণ করে স্লুইচগেটের মাধ্যমে পানি নিয়ন্ত্রণ করলে এলাকার কৃষক ও গো-খামারিরা উপকৃত হবেন, সেই সাথে বেঁচে যাবে সরকারের কোটি কোটি টাকা।

সিরাজগঞ্জ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেন, ওই এলাকার ইরি- বোরো ফসল রক্ষায় এক কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২শ মিটার দীর্ঘ বাঁধটি নির্মাণ করা হয়। এ কারণে বন্যা থেকে এ বছর ফসল রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে। বাঁধটি কেটে দেয়ায় ফসলের ক্ষতি না হলেও গো-খামারিরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থায়ী বাঁধ নির্মিত হলে এ সমস্যা থাকবে না।